ভাইরাল ভিডিও

মা দূর্গা কে সাক্ষী রেখে বৈশাখী’র সিঁথিতে সিঁদুর দিতেই, এবার শোভন-বৈশাখীর সম্পর্ক নিয়ে মুখ খুললেন শোভন পুত্র সপ্তর্ষি

এবার পুজোর পাওয়ার কতল শোভন-বৈশাখী। সোশ্যাল মিডিয়ার মূল আকর্ষণ এরাই। শুধু সোশ্যাল মিডিয়া বললে ভুল বলা হবে, গোটা মিডিয়াতে শোভন-বৈশাখী সম্পর্ক এখন হট টপিক। তারা পুজোয় কি কি পোশাক পরবেন, কিভাবে কাটাবেন, বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাচ তাদের ইন্টারভিউ সবটাই নেটদুনিয়ায় ভাইরাল। নেটদুনিয়ায় বর্তমানে সবথেকে বেশি ট্রোল করা হয় এই জুটিকে নিয়েই। সম্প্রতি সম্প্রতি বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় এর সিঁথিতে সিঁদুর পরিয়ে দেওয়া নিয়ে বাবা শোভন চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন সপ্তর্ষি চট্টোপাধ্যায়।

বিজয় দশমীর দিন এক বৈদ্যুতিন চ্যানেলের বিয়ের অনুষ্ঠানে মা দুর্গার সামনে প্রফেসর বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় সিঁথিতে সিঁদুর পরিয়ে দিলেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। এই ঘটনা সামনে আসার পর থেকেই তোলপাড় করে দিয়েছে গোটা মিডিয়াকে। প্রশ্ন উঠিয়েছে রাজনৈতিক মহলের অনেকেই। সোশ্যাল মিডিয়ায় এই ঘটনার ছবি ও ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর থেকেই নেটিজেনরা বিভিন্ন ধরনের মন্তব্য করেছেন। কেউ বলেছেন ডিভোর্স না হলে একজন স্ত্রী বর্তমান থাকা সত্ত্বেও অন্য কাউকে কিভাবে সিঁদুর পরিয়ে দেওয়া যায়? কে বলেছেন লিভ ইন মান্যতা হলেও দুটো বিয়ে এখনো মান্যতা পায়নি। নানা ধরনের প্রশ্ন উঠেছে নেটিজেনদের মধ্যে থেকে।

শোভন-বৈশাখী সম্পর্ক নিয়ে নেটদুনিয়া তোলপাড় হয় অনেকদিন ধরেই। তবে সম্প্রতি বাবার এই কান্ড দেখে আর চুপ করে থাকতে পারেননি রত্না ও শোভন চট্টোপাধ্যায়ের পুত্র সপ্তর্ষি চট্টোপাধ্যায়। বৈশাখীকে সিঁদুর পরানোর প্রসঙ্গে সপ্তর্ষি বলেছেন, “সিঁদুর খেলা দুর্গাপুজোয় হতেই পারে। কিন্তু, আমার একটা প্রশ্ন রয়েছে। আমাদের দেশে শরিয়ত আইন মানা হয় না। দুর্গাপুজো হিন্দুদের উৎসব। আইনত যখন শোভন চট্টোপাধ্যায় বিবাহিত, তখন তিনি কী করে এমন একজনের সিঁথিতে সিঁদুর পরিয়ে দেন যিনি অন্যের স্ত্রী এবং তাঁরও বিবাহ বিচ্ছেদ হয়নি!”

এরপর সপ্তর্ষি আরো বলেছেন, “শোভন চট্টোপাধ্যায় স্নান করে বেরোনোর পর কালী পুজো করেন। তিনি যখন হিন্দু ধর্ম মানেন, তখন এত বড় আইন কী করে ভাঙেন! দুর্গাপুজোয় মহিলাকে সর্বোচ্চ শক্তি হিসেবে আরাধনা করা হয়। আমরা বলি, সব মহিলার মধ্যে দুর্গা রয়েছেন। আজ তিনি দুর্গাপুজোয় নিজের স্ত্রীকে অপমান করে অন্যের স্ত্রীকে সিঁদুর পরিয়ে দিচ্ছেন। ইসলামেও বলা হয়েছে যদি আপনি দ্বিতীয় বিয়ে করতে চান তাহলে প্রথম স্ত্রীর অনুমতি প্রয়োজন। কিন্তু, এখানে তো উনি বেলেল্লাপনা করে বেড়াচ্ছেন।” সপ্তর্ষির এই মন্তব্য সামনে আসার পর থেকেই সরগরম হয়ে উঠেছে রাজনৈতিক মহল সহ গোটা মিডিয়া।

রত্ন চট্টোপাধ্যায় আগেই বলে দিয়েছেন তিনি শোভন চট্টোপাধ্যায়কে কখনোই ডিভোর্স দেবেন না। বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় কোথায় তার সঙ্গে শোভন চট্টোপাধ্যায়ের সম্পর্ক প্রায় ১৪ বছরের। এই প্রসঙ্গে রত্ন চট্টোপাধ্যায় একবার সংবাদমাধ্যমের এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছিলেন তাদের সম্পর্ক ৪ কিংবা ৫ বছরের তার বেশি নয়। শোভন চট্টোপাধ্যায়কে নিয়ে বৈশাখী ও রত্নার মধ্যে টানাপোড়েন বেশ কয়েক বছরের। তবে বর্তমানে শোভন চট্টোপাধ্যায় বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় একই সাথে একই ফ্ল্যাটে থাকেন। সম্প্রতি বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রকাশ্যে সিঁদুর পরিয়ে দেওয়ার ঘটনায় প্রশ্ন উঠছে অনেক। এই বিষয় নিয়ে এখন অব্দি মুখ খোলেননি শোভন-বৈশাখী।

Related Articles

Back to top button