Storyবলিউড

মা হওয়ার স্বপ্ন অধরাই জয়া প্রদার, তিন সন্তানের বাবা কে বিয়ে করার পরেও প্রথম স্ত্রীর অধিকার পাননি অভিনেত্রী

৩০ বছরের অভিনয় জীবন জয়া প্রদার। আশির দশকে প্রথম সারির অভিনেত্রীদের মধ্যে জয়া প্রদা অন্যতম। সিনেমা জগতে ১৪ বছর বয়সেই তিনি পদার্পণ করেন।

এখন তার বয়স ৬০ বছরের কাছাকাছি। ৩০ বছর ধরে বিভিন্ন ভাষায় প্রায় ৩০০ টি ছবিতে অভিনয় করেছেন আশির দশকের প্রথম সারির অভিনেত্রী জয়াপ্রদা।

অনেক বড় বড় কলাকুশলীদের সাথে তিনি কাজ করেছেন। তার অভিনয় দক্ষতা দর্শক মহলে খুব কম সময়ই তাকে জনপ্রিয়তা এনে দিয়েছিল। তিনি তামিল, তেলেগু, কান্নর, মালায়ালাম, হিন্দি ভাষায় বিভিন্ন ছবিতে অভিনয় করেছেন। আশির দশকের ব্যস্ত অভিনেত্রী দের মধ্যে জয়া প্রদা একজন।

অভিনেত্রী জয়া প্রদা একসময় আয়কর সংক্রান্ত মামলায় জড়িয়ে পড়েছিলেন। সেই সময়ের প্রযোজক শ্রীকান্ত নাহাটা ঐ মামলা সংক্রান্ত বিষয় থেকে অভিনেত্রীকে বেড়িয়ে আসতে সাহায্য করেছিলেন।

এই ঘটনার পর থেকেই প্রযোজক শ্রীকান্ত নাহাটার সঙ্গে বন্ধুত্ব সম্পর্কের সূত্রপাত হয় অভিনেত্রী জয়া প্রদার। পরে সেই সম্পর্কই প্রেমের সম্পর্কে পরিণত হয়। এরপরে শ্রীকান্ত ও জয়া বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন।

প্রযোজক শ্রীকান্ত নাহাটা আগে থেকেই বিবাহিত ছিলেন। আগের স্ত্রীকে ডিভোর্স না দিয়েই শ্রীকান্ত বিয়ে করেছিলেন জয়াকে। আগে থেকেই তিন সন্তানের বাবা ছিলেন প্রযোজক শ্রীকান্ত নাহাটা।

বিয়ের পরই নিজেকে সম্পূর্ণরূপে অভিনয় জগৎ থেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন অভিনেত্রী জয়া প্রদা। যেহেতু শ্রীকান্ত আগে স্ত্রীকে ডিভোর্স না দিয়েই জয়াপ্রদা কে বিয়ে করেছিলেন তাই অভিনেত্রী শ্রীকান্তর জীবনে দ্বিতীয় স্ত্রী হয়েই থেকে গিয়েছিলেন।

অভিনেত্রী নিজে কোনদিন মা হতে না পারলেও মা হওয়ার ইচ্ছা পূরণের জন্য পরে তিনি তাঁর বোনের ছেলেকে দত্তক নিয়েছিলেন। তিনি অভিনয় জীবনে সাফল্য পেলেও পারিবারিক জীবনে তাকে অনেক ওঠাপড়ার মধ্যে দিয়ে যেতে হয়েছে। পরবর্তীকালে অভিনেত্রী রাজনৈতিক জীবনেরও স্বাদ নিয়েছেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button