Story

নিজেদের থেকে বয়সে ছোট ছেলেদের বিয়ে করে স্বামীর সুখে সংসার করছেন বলিউডের এই ৫ অভিনেত্রী, রইলো সম্পূর্ণ তালিকা

বলিউড মানেই এক বিশাল গ্ল্যামার জগৎ। যেখানে প্রতিদিন প্রতিনিয়ত চলছে টিকে থাকার লড়াই। বলিউড অভিনেত্রীদের জনপ্রিয়তা মানুষের মধ্যে প্রচুর। ব্যক্তিগত জীবনে এই অভিনেত্রীরাও প্রেমে পড়েন।

নিজেদের কর্মজগৎ থেকে কিংবা অন্য কর্মজগৎ-এর মানুষকে বেছে নেয় নিজেদের জীবনসঙ্গী হিসাবে। এমন অনেক বলিউড অভিনেত্রীরা রয়েছেন যারা নিজেদের থেকে ছোট ব্যক্তিকে বিয়ে করেছেন। চলুন জেনে নেওয়া যাক সেই সমস্ত অভিনেত্রীদের নাম ভালোবাসার সামনে বয়সটা কোন ব্যাপার নয়।

১) ঐশ্বর্য রাই বচ্চন: বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় সুন্দরী অভিনেত্রী হলেন ঐশ্বর্য রাই বচ্চন। নিজের থেকে ৩ বছরের ছোট অমিতাভ পুত্র অভিষেক বচ্চনের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। এক সময় এই অভিনেত্রীর প্রেমে পড়েছিলেন বহু তাবড় তাবড় অভিনেতারা। বর্তমানে তাদের দুজনের একটি কন্যাসন্তানও রয়েছে।

২) প্রীতি জিন্টা: বলিউডের এই অভিনেত্রীর হাসিতে মুগ্ধ ছিলেন অনেকেই। তিনি নিজের থেকে ছোট জিনি গুডেনাফকে (Gene Goodenough) বিয়ে করেছেন। তিনি নিজের সিদ্ধান্তে ঠিক কতটা দৃঢ় সেটা তিনি নিজের বিয়ের সিদ্ধান্ত জানানোর সময় বুঝিয়ে দিয়েছিলেন। শেষ পর্যন্ত তিনি জিনির সাথেই গাঁটছড়া বেঁধেছিলেন। বর্তমানে তারা বেশ ভালই আছেন।

৩) উর্মিলা মতন্ডকার: বলিউডের নব্বইয়ের দশকের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী ছিলেন উর্মিলা মাতন্ডকর। অভিনেত্রী নিজের থেকে কনিষ্ঠ মহসীন আলী মিরের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। বর্তমানে তারা মেঘেদের সংসার জীবন নিয়ে খুশি।

৪) প্রিয়াঙ্কা চোপড়া: বলিউডের এই অভিনেত্রী আজকের দিনে দাঁড়িয়ে বলিউড এবং হলিউড দুটি ইন্ডাস্ট্রিতেই দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন। আমেরিকান গায়ক নিক জোনাসকে নিজের জীবনসঙ্গী হিসেবে বেছে নিয়েছেন অভিনেত্রী। নিক জোনাস প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার থেকে বয়সে ১১ বছরের ছোট। বয়সের পার্থক্য থাকলেও তাদের মনের মিল রয়েছে প্রচুর। থেকে থেকেই এনাদের দুজনকে একসাথে নিরিবিলিতে কাটাতে দেখা যায়।

৫) সোহা আলী খান: পতৌদি কন্যা সোহা আলী খান নিজের থেকে ৫ বছরের ছোট কুনাল খেমুকে নিজের জীবনসঙ্গী হিসেবে বেছে নিয়েছেন। বর্তমানে তাদের একটি কন্যা সন্তানও রয়েছে। নিজেদের মেয়েকে নিয়ে তারা বেশ ভালই আছেন ব্যক্তিগত জীবনে।

জীবনসঙ্গী হিসেবে কাউকে বেছে নেওয়ার জন্য বয়সটা যে কোন ব্যাপার নয় তা এই অভিনেত্রীরা বারবার বুঝিয়ে দিয়েছেন। একসাথে ভালো থাকার জন্য একে অপরের প্রতি ভালোবাসা এবং বোঝাপড়া থাকাটাই প্রয়োজনীয়।

Related Articles

Back to top button