অফবিট

আরো এক বিরল ঘটনার সাক্ষী থাকবে গোটা বিশ্ব, ২৬-শে মে পৃথিবীর আকাশে উদিত হবে ‘সুপার ব্লাড মুন’!

গোটা বিশ্ব আবারো এক বিরল ঘটনা সাক্ষী হতে চলেছে। পৃথিবীর আকাশে দেখা যাবে ‘সুপার ব্লাড মুন’। কবে দেখা যাবে, কখন দেখা যাবে এসব জানার আগে আমরা আগে জেনে নেব এই ‘সুপার ব্লাড মুন’ কি?

সুপার ব্লাড মুন- পৃথিবী সূর্যকে প্রদক্ষিণ করে আর চাঁদ পুথিবীকে। এক অক্ষরেখায় ঘোরার সময় যখন চাঁদ, পৃথিবী ও সূর্য একই রেখায় চলে আসে তখনই চন্দ্রগ্রহন হয়। এই অবস্থানে যখন আকাশে পূর্ণিমা চাঁদ ওঠে তখন তাকে বলা হয় ‘সুপার ব্লাড মুন’।

এই সময় চাঁদের দিকে তাকালে একটা লাল রঙের আভা দেখা যায়। রিফ্লেকশন এর ফলে পৃথিবী থেকে আলো ঠিকরে চাঁদের অন্ধকার জায়গায় গিয়ে পরে বলে চাঁদকে লাল দেখায়। আর চাঁদের এই রঙের জন্যই চাঁদকে বলা হয় ‘ব্লাড মুন’।

এই ‘সুপার ব্লাড মুন’-এর দেখা মিলতে চলেছে আমাদের পৃথিবীর আকাশে। এই মাসের ২৬ তারিখেই পৃথিবীর আকাশে দেখা মিলবে এই ‘সুপার ব্লাড মুন’ এর। এটি হল ২০২১ সালের প্রথম ব্লাড মুন।

মহাকাশ প্রেমিদের কাছে এটা সুখবর। এই ব্লাড মুনকে ঘিরে সাধারণ মানুষের মধ্যে অনেক ভুল ধ্যান ধারণা আছে। অনেকে এই ব্লাড মনুকে অশুভ বলে মনে করেন।

এই ব্লাড মুন মোট ১৪ মিনিট ৩০ সেকেন্ড থাকবে বলে জানা গেছে। পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্ত থেকে দেখা যাবে ব্লাড মুন কে। অস্ট্রেলিয়া, পশ্চিম আমেরিকা, দক্ষিণ আমেরিকা, নিউজিল্যান্ড, ভারত মহাসাগর, প্রশান্ত মহাসাগর, আটলান্টিক মহাসাগর এবং দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার কিছু অংশ থেকে দেখা যাবে এই ব্লাড মুনকে।

তবে ভারতের অনেক জায়গা থেকেই দেখা যাবে না এই ব্লাড মুনকে। বর্তমানে টেকনোলজি অনেক উন্নত। বাড়িতে বসেই গোটা পৃথিবীর যেকোনো প্রান্তের মানুষ দেখতে পাবেন এই বিরল দৃশ্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button