News

হয়নি LIC? তবুও করোনাতে মৃত্যু হলে পরিবার পাবে ৭ লক্ষ টাকা! জানুন নিয়ম

ভয়ঙ্কর করোনা ভাইরাসের আক্রমণে এখন দিশেহারা গোটা দেশ। গত বছরের তুলনায় এবছর করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আরো ভয়ঙ্কর। এখনো পর্যন্ত মৃত্যু এর দিক থেকে সব থেকে এগিয়ে আছে ভারত। যেসব পরিবার এই ভাইরাসের কাছে নিজেদের প্রিয়জনকে হারিয়েছেন তারাই বুঝতে পারছেন কতটা ভয়ঙ্কর এই ভাইরাস।

স্বাভাবিক পরিস্থিতিতে লাইফ ইন্সুরেন্স মানুষকে বিভিন্ন ক্ষেত্রে সাহায্য করে। কিন্তু যিনি মারা গেছেন তার যদি কোন রকম কোন ইন্সুরেন্স করা না থাকে তবে সেই পরিস্থিতিতে EDLI বা এম্প্লয়িস ডিপোজিট লিংকড ইন্সরেন্স সহায় হবে। এর মাধ্যমে গত হওয়া ব্যক্তির পরিবার অনেকটাই উপকৃত হবেন।

একজন এমপ্লয়ীর প্রতি মাসের স্যালারি থেকে কেটে নেওয়া প্রভিডেন্ট ফান্ডই EPFO এর নিয়ম অনুযায়ী তার পরিবার পেতে পারেন। সেই লাইফ ইন্সুরেন্স এর পরিমাণ হবে ২.৫ লাখ থেকে ৭ লাখ টাকা পর্যন্ত।

EDLI স্কীমটি নিহত এমপ্লয়ীর পরিবারকে আর্থিক সুরক্ষা প্রদানের জন্যে তৈরি হয়েছিল। সমস্ত এমপ্লয়ী যাদের বেসিক স্যালারি ১৫০০০ টাকারও কম, তাদের পরিবারও ৭ লক্ষ টাকা পেতে পারেন।

একজন এলপ্লয়ী অসুখে, এক্সিডেন্টে অথবা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলে তার পরিবার পাবেন এই সুবিধা। তবে প্রভিডেন্ট ফান্ডের নমিনি যিনি একমাত্র তিনিই দাবিই করতে পারেন। তবে কোনো নমিনি না থাকলে মৃত ব্যক্তির উত্তরাধিকারী টাকার দাবি করতে পারবেন।

এই টাকা পেতে গেলে পূরণ করতে হবে IF FORM – 5। পাশাপাশি লাগবে মৃত ব্যক্তির ডেথ সার্টিফিকেট, এবং ক্যান্সলেশন চেক।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button