টলিউড

উৎসবে মাতোয়ারা বঙ্গ সেরা সুন্দরীরা! অনুরাগীদের মহাষ্টমীর শুভেচ্ছা মিমি-নুসরতের, দুই তারকার ছবিতেই অনুরাগীদের ভূয়সী প্রশংসা

অষ্টমীতে অনুরাগীদের শুভেচ্ছা জানিয়ে ছবি পোস্ট করলেন তারকা সাংসদ মিমি চক্রবর্তী ও নুসরত জাহান। অনুরাগীদের অষ্টমীর শুভেচ্ছা জানালেন অভিনেত্রী সাংসদ মিমি চক্রবর্তীও। গোলাপী শাড়ি, স্লিভলেস ব্লাউজ, ভারী গয়না, মাথায় খোঁপা। অষ্টমীর পুষ্পাঞ্জলীর জন্য তৈরি অভিনেত্রী। হাতে অঞ্জলীর থালাও রয়েছে। হাসিমুখে পোজ দিয়ে ছবি পোস্ট মিমির। ক্যাপশনে লেখেন, ‘শুভ মহা অষ্টমী। সবার মঙ্গল করো মা।’

সদ্য মা হয়েছেন টলিউড অভিনেত্রী এবং তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান। পাশাপাশি ইতিমধ্যেই একরত্তি ছেলেকে বাড়িতে রেখে কাজে ফিরতে দেখা গিয়েছে অভিনেত্রীকে। যে কারণে সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো সমালোচিত হয়েছেন অভিনেত্রী নেটিজেনদের কাছে। তবে এবার সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ছবি শেয়ারের মাধ্যমে অভিনেত্রী বোঝালেন যে ছেলেকে নিয়ে কতটা সতর্ক তিনি।

যত দিন এগিয়েছে সম্পর্কের সমীকরণ ততই বদলেছে। নুসরতের সন্তানের পিতৃ পরিচয় এতদিনে সবার সামনে এসেছে। এসেছে যশের সঙ্গে সম্পর্কের সত্যতাও। তবে, একরত্তি দুধের শিশু ছেলেকে বাড়িতে রেখে নুসরতের ঠাকুর দেখতে বেরনো মানতে পারছেন না অনেকেই!

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Nusrat (@nusratchirps)

সোমবার নুসরত-যশ জুটিকে দেখা গেল কলকাতার এক পুজো মণ্ডপে। পুজোর বিচারক হিসেবে নানা কলকাতার জনপ্রিয় মণ্ডপ গুলি ঘুরে দেখলেন তাঁরা। আর সেই সময়তেই ঢাকি ও পুজো উদ্যোক্তাদের অনুরোধ রাখতে যশের সঙ্গে ঢাক বাজাতে দেখা গেল তাঁকে। সেই সময় হঠাৎই লাঠি দিয়ে যশকে মারতে যান নুসরত। যা দেখে চমকে যান যশও। তারপর যশের গা ঘেঁষে দাঁড়িয়েই হাসি-ঠাট্টার মধ্যে দিয়ে পুজো উপভোগ করতে দেখা গিয়েছে তাদের।

এদিন নুসরত জানিয়েছেন বৃহত্তর পরিবারের স্বার্থেই তাকে কাজে ফিরতে হয়েছে। পাশাপাশি একজন মা হিসেবে, মেয়ে হিসেবে, এবং জনপ্রতিনিধি হিসেবে তার যে দায়িত্ব রয়েছে তা তিনি গুরুত্বসহকারে পালন করতে চান বলে জানিয়েছেন। প্রসঙ্গত অভিনেতা সোহম চক্রবর্তীর সঙ্গে খুব শীঘ্রই বড়পর্দায় ‘জয় কালী কলকাত্তাওয়ালী’ সিনেমায় অভিনয় করতে দেখা যাবে নুসরত জাহানকে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Mimi (@mimichakraborty)

ইতিমধ্যেই শুটিং শুরু করে দিয়েছেন অভিনেত্রী। সেই প্রসঙ্গে নুসরত জানান সারারাত ছেলেকে দেখা শোনার পর না ঘুমিয়ে সকালবেলা কাজে যেতে হচ্ছে তাকে। তবে তিনি তার এই নতুন দায়িত্ব নিয়ে যে বেশ খুশি তা জানাতে ভোলেননি।

Related Articles

Back to top button