টলিউড

শ্রাবন্তী পুত্রের সঙ্গে অন্তরঙ্গ ছবি পোস্ট দামিনীর, আদুরে ছবিতে মুগ্ধ নেটপাড়া, শ্রাবন্তী‘আফসোস নিয়ে বেঁচে থেকো না, যা ইচ্ছে তাই করো।’, বার্তা শ্রাবন্তীর হবু বউমার।

সদ্যই প্রেমিক আর হবু শাশুড়ি মায়ের সঙ্গে মলদ্বীপে ঘুরে এসেছেন দামিনী। শ্রাবন্তী পুত্রের সুবাদে এখন টলিউডে অতি পরিচিত নাম দামিনী ঘোষ। দীর্ঘদিন ধরেই এই মডেলের সঙ্গে প্রেম সম্পর্কে আবদ্ধ টলি নায়িকার একমাত্র পুত্র। চলতি বছরের শুরুতে রাখঢাক না রেখেই নিজের গার্লফ্রেন্ড হিসাবে দামিনীকে পরিচয় করিয়ে দিয়েছেন অভিমন্যু।

মায়ের তৃতীয় বিয়ে ভাঙার খবরে যখন সংবাদ মাধ্যম থেকে সোশ্যাল মিডিয়া তোলপাড় তখনই নিজের প্রেমিকাকে প্রকাশ্যে আনেন ঝিনুক (এই নামেই অভিমন্যুকে ডাকেন শ্রাবন্তী)। যদিও মডেল দামিনী ঘোষের সঙ্গে অভিমন্যুর সম্পর্কের কথা দীর্ঘ সময় ধরেই ছিল ওপেন সিক্রেট। যতদিন যাচ্ছে ততই গাঢ় হচ্ছে এই প্রেমিক যুগলের রোম্যান্স। এক মুহূর্ত যেন প্রেমিকাকে কাছছাড়া করতে চান না ঝিনুক (শ্রাবন্তী এই নামেই ডাকেন ছেলেকে)।

মলদ্বীপ থেকে ফিরে এসেও অভিমন্যুর সঙ্গেই সময় কাটাচ্ছেন দামিনী। শুক্রবার ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে অভিমন্যুর সঙ্গে একটি রোম্যান্টিক ভিডিয়ো পোস্ট করেছেন তিনি। সেখানে অভিমন্যুর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হয়ে বসে থাকতে দেখা গিয়েছে দামিনীকে।

কালো ড্রেসে গ্ল্যামারাস অবতারে পাওয়া গেল দামিনীকে, অভিমন্যুর অবশ্য চোখ আটকে মুঠোফোনে। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় দেওয়ালে মলদ্বীপ সফরের বেশ কিছু ছবি পোস্ট করেছেন দামিনী। সেখানে এক্কেবারে ‘দ্বীপ-কন্যা’ হিসাবে পাওয়া গেল তাঁকে।

সাদা-নীল প্রিন্টেট স্লিট ড্রেস, কানের পাশে গোঁজা ফুল- সমুদ্র সৈকতের পারে পোজ দিলেন দামিনী। সঙ্গে রইল জরুরি বার্তা। জানালেন, ‘আফসোস নিয়ে বেঁচে থেকো না, যা ইচ্ছে তাই করো।’ কখনও মনোকিনি, কখনও আবার শর্টসে পোজ দিতে দেখা গিয়েছে তাঁকে।

শ্রাবন্তী ও তাঁর প্রথম স্বামী পরিচালক রাজীব বিশ্বাসের একমাত্র সন্তান অভিমন্যু। দামিনী-অভিমন্যুর বন্ধুত্বের কথা শ্রাবন্তী আগে থেকেই জানেন। ছেলের গার্লফ্রেন্ডের সঙ্গেও দারুণ বন্ডিং শ্রাবন্তীর।ছেলের প্রেম সম্পর্ক নিয়ে শ্রাবন্তীর বক্তব্য ,’এই বয়সে তো এরকম হবেই’।

শ্রাবন্তী পুত্রের সঙ্গে সম্পর্কে থাকার জেরে সোশ্যাল মিডিয়া মাঝেমধ্যেই আক্রমণের মুখে পড়েন দামিনীও। তবে তিনিও ট্রোলারদের পাত্তা দিতে না-রাজ। তাঁর রূপে-গুণে মুগ্ধ অনুরাগীর সংখ্যাও নেহাত কম নয়।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Damini Ghosh (@daminighosh77)

Related Articles

Back to top button