টলিউড

উনিশের প্রচার বিতর্কে জড়িয়েছিলেন, ‘খুব ভুগেছি’! ভোটের প্রচারে নেমে বিতর্কে জড়িয়ে ভিসা হারিয়েছিলেন বাংলাদেশি অভিনেতা ফিরদৌস! অবশেষে আড়াই বছর পরে পেলেন ভারতে আসার অনুমতি

২০১৯ সালে লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল প্রার্থীর হয়ে প্রচারে নেমেছিলেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেতা ফিরদৌস আহমেদ। এরপর বিরোধীদলের অভিযোগে সেখানে হস্তক্ষেপ করেছিল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। ফলস্বরূপ ভিসা হারিয়েছিলেন অভিনেতা ফিরদৌস। অবশেষে আজ আড়াই বছর পর জানা গেল শেষ পর্যন্ত ফের ভারতে আসার অনুমতি মিলেছে তার।

প্রসঙ্গত উনিশের লোকসভা নির্বাচনের সময় উত্তর দিনাজপুরের তৃণমূল প্রার্থী কানহাইয়ালাল আগরওয়ালের হয়ে প্রচার করতে দেখা গিয়েছিল ফিরদৌসকে। কিন্তু তিনি জানতেন না অন্য দেশের নাগরিক হয়ে ভারতে এসে ভোটের প্রচার এর নামা আইনত সিদ্ধ নয়। যে কারণে শেষ পর্যন্ত ভিসা হারাতে হয় তাকে।

এদিন ফের ভারতে আসার অনুমতি পেয়ে বাংলাদেশের একটি বেসরকারি সংবাদমাধ্যমকে এক সাক্ষাৎকারে অভিনেতা জানিয়েছেন ভিসা হারানোর ফলে বেশ কয়েকটি বড় সিনেমার কাজ হাতছাড়া হয়েছে তার। যার মধ্যে রয়েছে দত্তা এবং বঙ্গবন্ধুর মতো জনপ্রিয় সিনেমা।

এ ব্যাপারে বেশ আফসোস করতে দেখা যায় বাংলাদেশের এই জনপ্রিয় অভিনেতাকে। তিনি জানিয়েছেন তার ভুল থেকে শুধুমাত্র তিনি নয়, তার উত্তরসূরিদেরও শিক্ষা নেওয়া উচিত। যাতে এ ধরনের অনিচ্ছাকৃত ভুলের মাশুল আর কাউকে দিতে না হয়। ভোটের প্রচারে যোগদানের ব্যাপারে অভিনেতা জানিয়েছেন না জেনেই অংশগ্রহণ করেছিলেন তিনি। কিন্তু বর্তমানে আইন সম্পর্কে বেশ ওয়াকিবহাল হয়েছেন বলেই জানিয়েছেন ফিরদৌস।

Related Articles

Back to top button