বলিউড

সিদ্ধার্থর মৃত্যুর আগে রাতে কী হয়েছিল! এবার মুখ খুললেন বন্ধু হিন্দুস্তানি ভাউ

মাত্র ৪০ বছর বয়সে আচমকা হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে সদ্য প্রয়াত হয়েছেন অভিনেতা সিদ্ধার্থ শুক্ল। তাঁর প্রয়াণ নিয়ে এখনও আলোচনা চলছে বিভিন্ন মহলে। সিদ্ধার্থকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে তাঁর বাড়িতে গিয়েছিলেন বিগ বস ১৩-র অপর এক প্রতিযোগী বিকাশ পাঠক। যিনি হিন্দুস্তানি ভানু নামে দর্শকের কাছে পরিচিত। সেখানেই তাঁর দেখা হয় সিদ্ধার্থর মা রীতা শুক্লর সঙ্গেও। সিদ্ধার্থর মৃত্যুর দুদিন আগে ঠিক কী হয়েছিল, রীতার থেকে জেনে তিনি সাংবাদিকদের জানান।

বিকাশের কথায়, “সব ঠিকই ছিল। সে দিন রাত সাড়ে তিনটে নাগাদ সিড ওর মায়ের কাছে এক গ্লাস ঠাণ্ডা জল চেয়েছিল। কারণ ওর শরীরে অস্বস্তি হচ্ছিল। উনি সিডকে জল দেন। তারপর আইসক্রিমও খেয়েছিল সিদ্ধার্থ। এরপর ও ঘুমিয়ে পড়ে। সিদ্ধার্থ সকাল ১০টার মধ্যে উঠে পড়ত। পরের দিন ১০টা বেজে গেলেও ও না ওঠায় ওর মা ওর ঘরে যান এবং সব কিছু জানতে পারেন।”

মুম্বইয়ের ওশিয়াড়ার শ্মশানে সিদ্ধার্থর শেষকৃত্যে হাজির ছিলেন অভিনেত্রী সম্ভবনা শেঠ এবং তাঁর স্বামী অবিনাশ দ্বিবেদী। সেখান থেকে ফিরে সাংবাদিকদের সম্ভবনা বলেন, “সিদ্ধার্থ মেরা বাচ্চা… বলতে বলতে সমানে কেঁদে যাচ্ছিল শেহনাজ। সিদ্ধার্থর মৃতদেহের পায়ের কাছে বসে পড়েছিল। যদিও পরে নিজেকে সামলে সব নিয়ম পালন করেছে। আন্টিও কাঁদছিলেন। কিন্তু নিজেকে শক্ত রাখার চেষ্টা করছিলেন। শেহনাজকে ধরে রাখা যাচ্ছিল না। সিদ্ধার্থর সঙ্গে এটা যদি হতে পারে, তা হলে আমাদের সঙ্গে সব কিছু হতে পারে। সব পরিস্থিতির জন্য তৈরি থাকতে হবে।” এক সাক্ষাৎকারে সিদ্ধার্থর মায়ের সম্পর্কে জ্যাসলিন বলেন, “সিদ্ধার্থর মা অত্যন্ত শক্ত মনের মহিলা। উনি কিছু বলার মতো অবস্থায় নেই। আসলে ওর পরিবারের কেউই এখন কিছু বলতে পারবেন না। কিন্তু ওর মা আমাদেরকে যেটুকু বলছেন, তাতে আমরাই কান্না থামাতে পারছি না। উনি নিজেকে শান্ত রাখার চেষ্টা করছেন। সব সময় সেটা সম্ভব হচ্ছে না।”

বিগ বস ১৩তে বিজয়ী হয়েছিলেন সিদ্ধার্থ। ওই শো’য়ে সিদ্ধার্থ ও শেহনাজের গিলের কেমিস্ট্রি ভালবেসেছিল দর্শক। যদিও তাঁদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে এ কথা স্বীকার করেননি তাঁরা। তবুও তাঁদের একসঙ্গে সময় কাটানো, নানা মুহূর্তকে ভালবেসে অনুরাগীরা তাঁদের ভালবেসে নাম দিয়েছিল ‘সিডনাজ’। দিন কয়েক আগে একসঙ্গে মিউজিক ভিডিয়োতেও অভিনয় করেছেন তাঁরা। তাঁদের একসঙ্গে বড় পর্দায় দেখবার ইচ্ছে ছিল ভক্তদের। সেই ইচ্ছে যদিও আর পূরণ হল না।

‘বিগ বস ১৩’-র বিজেতা হওয়ার আগে থেকেই ইন্ডাস্ট্রিতে সিদ্ধার্থর পরিচিতি ছিল। ওই রিয়ালিটি শোয়ে জয়লাভের পর তিনি আরও জনপ্রিয় হন। ‘হাম্পটি শর্মা কি দুলহানিয়া’-র মতো ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। একতা কাপুরের শো ‘ব্রোকেন বাট বিউটিপুল ৩’- সিদ্ধার্থর শেষ কাজ। ওই শোয়ে সিদ্ধার্থর চরিত্রের নাম ছিল অগস্ত্য। ‘বালিকা বধূ’, ‘দিল সে দিল তক’-এর মতো টেলিভিশন ধারাবাহিকে সিদ্ধার্থর অভিনয় পছন্দ করেছিলেন দর্শক। ‘বিগ বস’ ছাড়াও ‘ঝলক দিখলা যা ৬’, ‘ফিয়ার ফ্যাক্টর’, ‘খতড়ো কে খিলাড়ি’র মতো শোতেও অংশ নিয়েছিলেন তিনি।

Related Articles

Back to top button