বলিউড

শাহরুখ খানের মাস্টার স্ট্রোক! মাদক মামলার বিতর্ক থেকে দূরে রাখতে ‘মন্নত’ থেকে আরিয়ানকে সরিয়ে দেবেন শাহরুখ

২’রা সেপ্টেম্বর এক বিলাসবহুল ক্রুজ থেকে এনসিবির কর্মকর্তারা তল্লাশি চালিয়ে গ্রেফতার করেছিলেন আরিয়ানকে। এরপর টানা ১৬ ঘন্টা তাকে জেরা করা হয়েছিল। তার কাছ থেকে কোন মাদক না মিললেও তিনি স্বীকার করে নিয়েছিলেন মাদক কান্ডে তার যুক্ত থাকার কথা। এরপরেই তাকে আর্থার রোডের জেলে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। সেখানেই এতদিন ছিলেন তিনি।

বর্তমানে তিনি জামিন পেয়ে গিয়েছেন। এক লক্ষ টাকার বন্ডে জামিন পেয়েছেন তিনি। জামিনদার ছিলেন জুহি চাওলা। এখন মন্নতেই রয়েছেন আরিয়ান খান। তবে শোনা যাচ্ছে, মন্নত থেকে সরিয়ে দেওয়া হতে পারে আরিয়ানকে। শাহরুখের আলিবাগ ফার্ম হাউসে পাঠিয়ে দেওয়া হতে পারে তাকে। আরিয়ানকে একটু সময় দিতে চান শাহরুখ খান ও গৌরি খান। তাই এমন সিদ্ধান্ত নিতে পারেন তারা।

জেল থেকে ফিরে আসার পরই কাউন্সেলিং শুরু হয়েছে তার। তিনি মানসিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বলেই জানা গিয়েছে। মনোবিদ নিযুক্ত করা হয়েছে তার জন্য। শাহরুখ খানের মন্নতে ধুমধাম করে দিওয়ালি পালন করা হয়। তবে এবছর ছোট করেই দিওয়ালি সারবেন খান পরিবার। একদিকে ছেলে ট্রমায় রয়েছে, অন্যদিকে শাহরুখ কন্যা সুহানা খান রয়েছেন নিউ ইয়র্কে তাই এবছর ছোট করেই দিওয়ালি পালন হবে মন্নতে, এমনটাই জানা গিয়েছে।

আরিয়ান যখন আর্থার রোডের জেলে ছিলেন তখন তিনি টানা ২৬ দিন শুধু বিস্কুট ও জল খেয়ে কাটিয়েছিলেন। ফলে বাড়ি ফেরার পর তার জন্য আলাদা করে পুষ্টিকর খাবার সহযোগে একটি ডায়েট চার্ট বানানো হয়েছে। জেলে থাকাকালীন শোনা যায় তাকে নিয়ে চিন্তিত ছিলেন জেল কর্তৃপক্ষের লোকজনও।

জেলে থাকাকালীন বন্ধুদের সঙ্গেও কথা বলায় নিষেধাজ্ঞা ছিল তার। বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়া থেকে একেবারেই ইন-অ্যাক্টিভ হয়ে গেছেন তিনি। আরিয়ান জেলে থাকাকালীন সালমান খান ছাড়া মন্নতে আর কারোর যাতায়াত নিষিদ্ধ ছিল। বর্তমানে সেই নিষেধাজ্ঞা উঠলেও এই মুহূর্তে বাইরের লোকজনের সঙ্গে কিংবা ঘনিষ্ঠ মহলের সঙ্গেও বিশেষ কথা বলতে রাজি নন খান পরিবার।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by SHAHRUKH KHAN (@_srk.baadshah)

Related Articles

Back to top button