বলিউড

সবচেয়ে কাছের মানুষ কে হারালেন হৃত্বিক রোশন! শোকের ছায়া অভিনেতার পরিবারে, কান্নায় ভেঙে পড়লেন অভিনেতা হৃত্বিক, দুঃখের পাহাড় ভেঙে পড়ল হৃতিক রোশনের উপর

বলিউডের জনপ্রিয় নায়কদের মধ্যে হৃত্বিক রোশন অন্যতম, আজও বলিউডে দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন তিনি। বিভিন্ন ধারার চরিত্রে তার অভিনয় এবং নাচের স্টাইল দর্শকদের ভীষণ প্রিয়। প্রিয় এই অভিনেতার জীবনে সম্প্রতি শোক আছড়ে পড়লো। মারা গেলেন হৃত্বিক রোশনের দিদিমা পদ্মারানি ওম প্রকাশ। দীর্ঘদিন ধরেই বয়স জনিত কারণে অসুস্থতায় ভুগছিলেন তিনি অবশেষে গত ১৬ ই জুন শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন পদ্মা রানী ওম প্রকাশ। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯১ বছর। তার মৃত্যুতে শোকের ছায়া ছড়িয়ে পড়ল রোশন পরিবারে।

হৃত্বিকের দিদা হওয়ায় তার একমাত্র পরিচয় নয় , তার আরও একটি পরিচয় আছে। চলচ্চিত্র পরিচালক জে ওম প্রকাশের স্ত্রী ছিলেন তিনি। গত বৃহস্পতিবার হৃদযন্ত্র বিকল হয়ে মৃত্যু হয় তার, পদ্মা রানির মৃত্যুর খবর সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন হৃত্বিক রোশনের বাবা রাকেশ রোশন। তার স্ত্রী পিঙ্কি রোশন জে ওম প্রকাশের মা অর্থাৎ তার শাশুড়ি মাতার মৃত্যু সংবাদ তিনি এই দিন সংবাদমাধ্যমকে দিয়ে বলেন,“ দুর্ভাগ্যবশত এই খবর সত্যি। ওম শান্তি।” বহুদিন ধরেই শয্যাশায়ী ছিলেন পদ্মা রানি, গত দু’বছর ধরে রোশন পরিবারই ছিলেন তিনি, তার মৃত্যুতে সকলেই তাই কষ্ট পেয়েছেন।

হৃত্বিকের পরবর্তী ছবি হল ‘বিক্রম বেদা’। জনপ্রিয় ছবি বিক্রম বেতাল থেকেই তৈরি হয়েছে এই গল্প। আবুধাবি, লখনৌ আর মুম্বাইয়ের বিভিন্ন জায়গায় এই সিনেমার শুটিং হয়েছে, দক্ষিণের বক্স অফিসে এই ছবির দুর্দান্ত সাফল্য লাভ করার পর এই ছবিটি হিন্দিতে করার সিদ্ধান্ত নেন পরিচালক গায়েত্রী পুষ্কর। এই ছবিতে দক্ষিণের R Madhavan ও Vijay sethupathiর জায়গায় বলিউডের হৃত্বিক স‌ইফ থাকবেন। কোন জুটি বেশি সফল হবে কোন জুটি দর্শকদের মনে বেশি দাগ কাটবে তা নিয়ে এই মুহূর্তে রীতিমতো জোর জল্পনা শুরু হয়ে গিয়েছে। ২০২১ সালে বিক্রম বেদা তৈরি হচ্ছে এই খবর প্রথম দিয়েছিলেন পরিচালক নিজেই। তারপর থেকে অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করতে থাকেন সকলে আর হৃত্বিককে এই ছবিতে দেখবার জন্য এমনিতেই মুখিয়ে রয়েছেন তার অনুরাগীরা।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, এই বছর হৃত্বিক প্রসঙ্গে আরো একটি খবর জানা যাচ্ছে, হৃত্বিক তার মনের মানুষ খুঁজে পেয়েছেন! এপ্রিল মাসে মুম্বাইয়ের একটি রেস্তোরাঁ থেকে হৃত্বিক ও সাবাকে একসাথে বের হতে দেখা যায়। এরপর থেকেই কানাঘুষো শোনা যেতে থাকে যে প্রেম করছেন তারা, এরপর ঋত্বিক ও সাবাকে একসাথে মুম্বাই এয়ারপোর্টেও দেখতে পাওয়া যায়, একসাথে হাত ধরে হাঁটছিলেন তারা।

Related Articles

Back to top button