বলিউড

বিলাসবহুল জীবন ছেড়ে ধাবায় বাসন মাজার কাজ নিয়েছিলেন অভিনেতা সঞ্জয় মিশ্র, ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড পেয়েও করতেন বাসন মাজার কাজ

বলিউড হল এক বিশাল জগৎ। যেখানে প্রতিদিন প্রতি মুহূর্তে বহু মানুষ আসছেন দুচোখে স্বপ্ন নিয়ে। অনেকেই হারিয়ে যাচ্ছেন মুহূর্তে। এমন খুব কম মানুষ রয়েছেন যারা নিজেদেরকে প্রতিষ্ঠা করতে সক্ষম হয়েছেন এই ইন্ডাস্ট্রিতে। নিষ্ঠা ও পরিশ্রমের পাশাপাশি প্রয়োজন ভাগ্যও। আজ আমরা যাকে নিয়ে কথা বলবো তার নাম সঞ্জয় মিশ্র। এই অভিনেতার পরিচয় আলাদাভাবে দেওয়ার কিছু নেই। ইনি একজন অভিনেতা এটাই তার পরিচয়।

‘ওহ ডার্লিং! ইয়ে হ্যায় ইন্ডিয়া’ এই ছবির হাত ধরে ইন্ডাস্ট্রিতে পা রেখেছিলেন এই অভিনেতা। এরপর ২০১৩ সালে ‘আঁখো দেখি’ ছবিতে অভিনয় করে বহু গুণীজনের কাছে প্রশংসিত হয়েছিলেন তিনি। এই ছবিতে তার অভিনয়ের জন্য ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ডও পেয়েছিলেন তিনি। গোলমাল,ধামাল,গান্ধীগিরি, জলি এলএলবি, মাসানের মত ছবিতে অভিনয় করেছেন এই অভিনেতা। যার অভিনয়ে মুগ্ধ অনেকেই।

তবে একসময় এই সমস্ত বিলাসিতা ছেড়ে অভিনয় জীবন থেকে অনেকটাই দূরে সরে গিয়েছিলেন তিনি। শোনা যায় বাবা শম্ভুনাথ মিশ্রের মারা যাওয়াতে মেনে নিতে পারেননি তিনি। বাবা মারা যাওয়ার পর তিনি সব ছেড়ে দিয়ে ঋষিকেশে চলে যান। সেখানে একটি ধাবাতে কাজ করতেন তিনি। বাসন মাজা থেকে শুরু করে চা করা সবকিছুই করতেন এই পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেতা। এই অভিনেতা ন্যাশনাল স্কুল অফ ড্রামা থেকে অভিনয় শিখেছিলেন।

ইন্ডাস্ট্রির কেউই চাননি তার মতো একজন গুণী শিল্পীকে ইন্ডাস্ট্রি থেকে হাতছাড়া করতে। পরে পরিচালক রোহিত শেট্টি সঞ্জায় মিশ্রাকে ফোন করে ফিরে আসার জন্য অনুরোধ করেন। হ্যাঁ, তিনি তার অনুরোধ রেখেছিলেন। তিনি ফিরে এসেছিলেন অভিনয় জগৎ-এ। তারপর থেকে এখনো পর্যন্ত একটার পর একটা ছবিতে তার দুর্দান্ত অভিনয় উপহার দিচ্ছেন দর্শকদের। যাতে মুগ্ধ দর্শকমহলও।

Related Articles

Back to top button